বিগত যৌবন যার, ভাঁড়ামোর শ্রেষ্ঠ সময় তার – হুমায়ুন আহমেদ

সুপারহিরো হুমায়ুন আহমেদ

নিউইয়র্ক প্রতিনিধি

বিশিষ্ট ঔপন্যাসিক, আন্তর্জাতিক সুপার হিরো সমবায় সমিতির চেয়ারম্যান, সুপারম্যানের জমজ ভাই, ব্যাটম্যানের খালাতো ভাই এবং স্পাইডারম্যানে দুলাভাই হুমায়ুন আহমেদ ওরফে হুম্যান বলেছেন “বিগত যৌবন যার, ভাঁড়ামোর শ্রেষ্ঠ সময় তার।”

বিশ্বের একমাত্র অমূর্খ প্রেমিক পুরুষ হুম্যান এক সাক্ষাতকারে এসব কথা বলেন। সুপারম্যান, নাফরম্যান, ব্যাটম্যান, হুম্যান, স্পাইডারম্যান – এরা সবাই এক কাতারের মানুষ। বলেছেন এ বিদগ্ধ সাহিত্য বিশারদ।

এসময় তিনি বলেন, “আমাদের সবাইকে বয়সভিত্তিক আচরণ করতে হবে। শিশুকালে ফিডার খেতে হবে, যৌবনে লুচ্চামি করতে হবে এবং বৃদ্ধকালে ধর্মকর্ম করতে হবে। এটা হচ্ছে মানবজীবনের শ্রেষ্ঠ বিধান।” জামায়াতের সহিত এ বিধান কায়েম করার জন্য ভক্ত আশেকানদের প্রতি আহবান জানান তিনি।

কিছুদিন আগে গুগলে বাংলায় সুপারহিরো লিখে সার্চ করলে একটি মাত্র রেজাল্ট আসে। এসময় তিনি হতাশায় ভেঙ্গে পড়েন। কোমরে পাওয়ার না থাকায় তিনি হাঁটু বরাবর ভাঙ্গেন। সার্চ রেজাল্টে গুগল জানায় বঙ্গবন্ধু অল্পের জন্য সুপারহিরো হতে পারেননি। যদি তিনি রাজনীতি না করতেন, তাহলে সুপারহিরো হয়ে যেতেন। অথবা বঙ্গবন্ধুর বাড়ি গোপালগঞ্জে না হয়ে আমেরিকায় হলেও চলতো। কিন্তু বিধির বিধান বাংলাদেশে একমাত্র হুম্যান ছাড়া আর কোন সুপার হিরো থাকবে না। কখনো ছিলোও না। এখনো নেই।

আলাপের এক পর্যায়ে তিনি আবারো সবাইকে সুপারহিরো হওয়ার প্রতি জোর দেন। হুম্যান বলেন, “প্রথমে গোসল করতে হবে, এরপর গামছা দিয়ে গায়ের পানি মুছতে হবে। পরে যত্ন করে প্যান্ট পরতে হবে। জিপার না লাগালেও চলবে। প্যান্টের উপর একটা পিংক কালারের জাঙ্গিয়া পরে নিতে হবে। তবে খেয়াল রাখতে হবে জাঙ্গিয়া যেনো প্যান্টের উপরে থাকে। এরপর আমরা সবাই সুপারম্যান হয়ে যাবো। এটা হচ্ছে সুপারহিরো হওয়ার সহজ তরিকা!”

বাংলাদেশের খান বংশের সাথেও তার ভালো সম্পর্ক। তিনি বলেন, “এদেশের জনপ্রিয় নায়ক শাকিব খান, জনপ্রিয় গায়ক হৃদয় খান, জনপ্রিয় ঔপন্যানিসক হুমায়ুন আহমেদ খান এবং জনপ্রিয় সুপারহিরো হুম্যান খান। আমরা সবাই খান বংশের লোক।”

বাংলাদেশের অপর জীবন্ত কিংবদন্তি ইমদাদুল হক মিলন সম্পর্কে সুপারহিরো হুম্যান বলেন, “প্রথমত সে সুপার হিরো নয়। দ্বিতীয়ত তার প্রেমে ভুল আছে। তাই তসলিমার উপন্যাসে তার নাম এসেছে। আমার প্রেমে কোন ভুল নেই। আমি যা করার দোয়া দুরুদ পড়ে করেছি। আমার নাম কোন সুন্দরী নারীর উপন্যাসে আসবে না।”

6 Comments to “বিগত যৌবন যার, ভাঁড়ামোর শ্রেষ্ঠ সময় তার – হুমায়ুন আহমেদ”

  1. oohhhaaahhhahahahahaha….=))

    Like

  2. হাসতে হাসতে শ্যাষ =))

    Like

  3. চিনবার পারচি মাম্মা তুমারে! চটি লেখক হুমায়ুন আজাদের পুং থলিতে জন্ম নেয়া গেলমান তুমি তাই না?? আচু কেমুন মাম্মা?

    Like

  4. এই চুপার হিরোদের নিয়া একটা ছিঃনেমা বানানোর কাজে হাত দেন😛

    Like

  5. দাদার জন্ম কান্দুপট্টি দেশেই হবে। কোন খাঃ পুঃ না হলে স্বনামধন্য একজন লেখককে নিয়ে এভাবে ইয়ার্কি, মস্করা করতে পারেনা।

    Like

  6. নাফরম্যান!!!! LOL

    Like

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: