উত্তর কোরিয়ার পরিবারতন্ত্রের নিন্দা জানালেন খালেদা জিয়া

উত্তর কোরিয়ার পরিবারতন্ত্র নিয়ে বিরক্তি প্রকাশ করছেন বেগম জিয়া

পিয়ং ইয়ং প্রতিনিধি

উত্তর কোরীয়ার নেতা কিম জং ইলের মৃত্যুর পর দেশের হাল ধরেছেন তার পুত্র কিম জং উন। বিশ্ব কাঁপিয়ে দেয়া কমিউনিস্ট নেতা কিম জং ইল হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা যাবার পর কিম জং এর আস্থাভাজনরা তার ছেলেকেই যোগ্য উত্তরসূরী হিসেবে বিবেচনা করেছেন।

দ্বায়িত্ব গ্রহণের পরপরই ফুফা জাং সং থায়েককে সেনাবাহিনী প্রধান হিসেবে নিয়োগ দেন কিম জং উন। ফলে পুরো শাসন ব্যবস্থায় সমাজতন্ত্রের পরিবর্তে পরিবারতন্ত্র কায়েম হয়ে গেলো। এরপরই প্রতিবাদের ঝড় উঠে বাংলাদেশে। প্রধান বিরোধী দলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া এ ধরনের কর্মকান্ডের নিন্দা জানিয়েছেন। এক নিন্দাবার্তায় তিনি বলেন, “পরিবারতন্ত্রের এ ধরনের নোংরা চর্চা সমাজতন্ত্রকে হুমকীর মুখে ছেড়ে দেবে। আমরা এর নিন্দা জানাচ্ছি।

তিনি আরো বলেন, “কিম জং উন তার ফুফাকে সেনাপ্রধান বানিয়ে ভুল করেছে। ফুফা’র কারণে বৈশ্বিক শান্তিতে কুফা লেগে যেতে পারে।” বেগম জিয়া তার দল ক্ষমতায় গেলে আইন করে উত্তর কোরিয়ায় পরিবারতন্ত্র চর্চা নিষিদ্ধ করার ঘোষণা দেন।

সদ্য বিএনপিতে যোগ দেয়া চিত্র নায়িকা ময়ূরীকে বেগম জিয়ার ব্যক্তিগত চিঠি নিয়ে উত্তর কোরিয়ায় পাঠানো হচ্ছে। চিঠিতে কিম জং উনের প্রতি পরিবারতন্ত্র চর্চা না করার অনুরোধ জানানো হয়েছে। আগামীকাল বা পরশু এ চিঠি নিয়ে উত্তর কোরিয়া যাবেন ময়ুরী। সেখান থেকেই সরকার পতনের আন্দোলনের ডাক দেয়া হতে পারে বলে জানিয়েছেন দলের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম। তিনি বলেন, “আওয়ামী বাকশালী সরকারের মরনঘন্টা বেজে উঠেছে।”

One Comment to “উত্তর কোরিয়ার পরিবারতন্ত্রের নিন্দা জানালেন খালেদা জিয়া”

  1. আপনারা ব্যাপক মাত্রার জিনিয়াস। ক্যারি অন🙂

    Like

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: