শেখ হাসিনার জন্য ধুতি পাঠালেন মনমোহন সিং

মগবাজার ডেস্ক

মনমোহন সিং (ফাইল ফটো)

বর্তমান সরকার বাংলাদেশ থেকে ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের বিদ্রোহীদের উচ্ছেদ করেছে। এদেরকে মোকাবেলার জন্য ভারত সরকারের বছরে ৫০ হাজার কোটি রুপি খরচ হতো। তাই ভারতের যে আর্থিক সাশ্রয় হয়েছে, তা থেকে বাংলাদেশকে ১০ থেকে ১৫ হাজার কোটি টাকা দেওয়া উচিত।  গতকাল শনিবার বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক বিষয়ক দুই দিনের সম্মেলনে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী এ বি তাজুল ইসলাম এসব কথা বলেছেন।

এরপরই টনক নড়ে ভারত সরকারের। সম্মেলনে উপস্থিত পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভার সাবেক স্পিকার হাশিম আবদুল হালিম ভারতের প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের কাছে এক তড়িৎবার্তা পাঠান। বার্তায় তিনি বলেন, “বাড়ির পাশে গরীব থাকলে তাদেরকে সাহায্য করতে হয়, এটা তাদের হক।”

তারবার্তা পাওয়ার পর জরুরী বৈঠকে বসে ভারতের মন্ত্রীসভার সদস্যরা। বৈঠকে বাংলাদেশকে ১৫ হাজার কোটি টাকা এবং এ টাকা রাখতে ব্যাগ সেলাইয়ের জন্য মনমোহনের অন্তত ২০টি পুরোনো ধুতি দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এ সিদ্ধান্ত পশ্চিমবঙ্গের মূখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীকে জানালে তিনি কোন প্রকার অসম্মতি জানাননি।

আজ সকাল ১১ টায় ২০টি ধুতির প্রথম চালান প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে এসে পৌঁছেছে। বাংলাদেশের পক্ষ থেকে ধুতিগুলো গ্রহণ করেন প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা মশিউর রহমান এবং  ডঃ গওহর রিজভী। উপদেষ্টাদ্বয় উপস্থিত সাংবাদিকদের বলেন, “ট্রানজিট নিয়ে যারা যারা আমাদের বিরুদ্ধে কথা বলেন, সবার উচিত এখন লাইন ধরে এসে গন্ধ শুঁকে যাওয়া।”

ব্যাগ সেলাই শেষ হলে ধীরে ধীরে আখাউড়া স্থল বন্দর দিয়ে টাকাবোঝাই ট্রাকগুলো বাংলাদেশে প্রবেশ করবে। এজন্য সড়ক মেরামত করতে যোগাযোগমন্ত্রীকে প্রধান করে ৭ সদস্যের একটি কমিটি এবং প্রকল্পের দুর্নীতি ঠেকাতে ৩ সদস্যের একটি স্টিয়ারিং কমিটি গঠন করা হয়েছে।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: