বিস্ময়কর নবজাতক জোনাথন হু মু

মগবাজার ডেস্ক ।। ১০ জুন ২০১১

যুক্তরাষ্ট্রের ইলিয়ন অঙ্গরাজ্যের শিকাগো নগরীতে জন্ম নিয়েছে এক বিস্ময়কর শিশু। কোন রকম পূর্ব লক্ষণ ছাড়াই জন্ম নেয়া শিশু এবং তার মা সুস্থ আছে। মা ক্রিস্টিনা রুজ জানান, মাত্র ২মাস আগে টের পান তিনি গর্ভবতী হয়েছেন। গতকাল তার সন্তান জন্ম নেয়ার সাথে সাথে অপরিচিত সব শব্দ উচ্চারণ শুরু করে। শুরুতে কেউ ধরতে না পারলেও পরে শনাক্ত করা গেছে যে, এসব শব্দ আসলে দক্ষিণ এশিয়ার বাংলাদেশের রাজনীতিবিদদের নাম। আশ্চর্য এ শিশুর উচ্চারিত নামগুলোর মধ্যে হাসিনা, খালেদা, এরশাদ, ফালু, সাহারা খাতুন, রাশেদ খান মেনন, দিলিপ বড়ুয়া উল্লেখযোগ্য।

গবেষকদের একটি দল প্রয়োজনীয় পরীক্ষা নিরীক্ষা শেষে নিশ্চিত হন, শিশুটির বাবা হয়তো বাংলাদেশের বর্তমান মূলধারার রাজনীতিবিদদের কেউ। কিন্তু ক্রিস্টিনা বিষয়টি অস্বীকার করেন। একটি গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠানে রিপোর্টার পদে কর্মরত ক্রিস্টিনা  রুজ জানান, “কিছুদিন আগে একটি পুরোনো ম্যাগাজিনে বাংলাদেশের এক সময়কার স্বৈর শাসক হু মু এরশাদের একটি ছবি দেখেছিলাম। কিছুক্ষণ মনযোগ দিয়ে তার ছবির দিকে তাকিয়েছিলাম। এছাড়া বাংলাদেশি কোন রাজনীতিবিদের সাথে আমার কখনো দেখা হয়নি।”

পুরো বিষয়টাতে রহস্যের গন্ধ পেয়ে ১২ সদস্য বিশিষ্ট গবেষক দল বাংলাদেশে আসবেন এরশাদকে নিয়ে গবেষণার জন্য। উল্লেখ্য শিশুটি জন্ম নেয়ার পর নিজের নামও বলতে পারে। নিজেকে জোনাথন হু মু বলে পরিচয় দিচ্ছে সে।

গবেষণার সুবিধার্থে এখনো শিশুটির কোন ধরনের স্থির চিত্র, ভিডিও চিত্র কিংবা ভয়েস প্রকাশ করা হয়নি। এ বিষয়ে আরো বিস্তারিত জানার জন্য দৈনিক মগবাজারের সাথে থাকুন।

2 Comments to “বিস্ময়কর নবজাতক জোনাথন হু মু”

  1. হুমুর সোনা যুক্তরাষ্ট্র পর্যন্ত পৌছাইয়া গেলো নাকি।

    Like

  2. কি পাওয়ারফুল !
    বাপ রে!
    ছবি দেখেই মাত্র ২মাসেই……বুড়ো হাড়ের কি ভেল্কি

    Like

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: