পুজিঁবাজার পতনের রহস্য বের করেছেন সালমান এফ রহমান

অর্থনৈতিক পাকিবেদক ।। ৩০ মে ২০১১

পুঁজিবাজার থেকে প্রায় ৬ হাজার টাকা নিয়ে চম্পট হওয়ার জন্য বাজার বিশেষজ্ঞদের সন্দেহের তালিকায় প্রধান নামটি হলো সালমান এফ রহমান। হোয়াইট বাল খ্যাত এ শীর্ষ শিল্পপতি দেশের অন্যতম বৃহত শিল্প প্রতিষ্ঠান বেক্সিমকো গ্রুপের মালিক। এর আগেও বিগত আওয়ামীলীগ সরকারের সময় শেয়ার বাজার কারসাজিতে তার হাত এবং পা জড়িত বলে বিশেষজ্ঞরা সন্দেহ করেছিলেন। কিন্তু সর্বদা সত্যবাদী হোয়াইট বাল তা নি:শর্তভাবে অস্বীকার করেছেন।

আজ বিকেলে গুলিস্তান গোলাপশাহ মাজার গেইটে আকস্মিক এক সংবাদ সম্মেলনে এবারের শেয়ারবাজার কারসাজি নিয়ে বিভিন্ন রহস্য উন্মোচন করেছেন। প্রথমে তিনি আল্লার্কসম খেয়ে নিজের জড়িত না থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। প্রয়োজনে সাদা কাগজে সিগনেচার দিতেও প্রস্তুত বলে জানান।

সালমান এফ রহমান বলেন, পুঁজিবার কারসাজির জন্য দায়ী হচ্ছে ইন্টারনেট। এসময় তিনি ব্যাগ থেকে সবুজ রঙের অনলাইন শেয়ার আইকন বের করে দেখান। তিনি বলেন, সব গন্ডগোলের মূল এ আইকনটি। আপনারা খেয়াল করুন, এ বস্তুতির রং সবুজ এবং সাদা। পাকিস্তানের পতাকার রংও সবুজ এবং সাদা। প্রকারান্তে কারসাজির সাথে যুদ্ধাপরাধীরাও জড়িত। আওয়ামীলীগ সরকারকে বেকায়দায় ফেলার জন্য পাকিস্তানী গোয়েন্দা সংস্থা এবং দেশবিরোধী চক্র এক হয়েছে।

হোয়াইট বাল বলেন, দৈনিক মগবাজার নামক একটি অনলাইন পত্রিকার খবর প্রতিদিন গড়ে ৫১ বার শেয়ার করা হয়। সাথে আছে যৌবনজ্বালা নামের একটি সামাজিক ওয়েবসাইট। যেখানে একেকটি ভিডিও ক্লিপ প্রতিদিন গড়ে ৬৯ বার শেয়ার হয়। এ ছাড়াও ফেসবুক এবং টুইটারতো আছেই। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের চেয়েও বৃহৎ শেয়ার লেনদেন এখন অনলাইনে হয়। অথচ সরকার সেখানে কোন মনিটরিং শুরু করেনি। অর্থমন্ত্রীর উচিত এসব শেয়ারের প্রতি কর বসানো।

বেক্সিমকো গ্রুপ অনলাইন শেয়ারিংয়ে আসবে কিনা, এমন এক প্রশ্নের জবাবে হোয়াইট বাল বলেন “আমরা সরকারের সাথে আলাপ আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেবো।”

অতিসত্ত্বর অনলাইন শেয়ারিং আইকনটিকে লাল সবুজে রূপান্তর করার জোর দাবি জানান বেক্সিমকো’র মালিক। তিনি বলেন, ৩০ লাখ শহীদের জানের বিনিময়ে পাওয়া লাল সবুজ পতাকাকে অপমান করে একটি চক্র সবুজ সাদা রং দিয়ে শেয়ার মার্কেটকে অপবিত্র করেছে। আমরা এর বিচার চাই। নইলে আমিনীকে সাথে নিয়ে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।

হোয়াইট বাল আন্তরিকভাবে আশা করেন এখন থেকে কেউ আর তার বিরুদ্ধে কুৎসা রটাবে না। ইব্রাহিম খালেদের তদন্ত দল যে রহস্য উন্মোচন করতে পারেনি, আমরা তা উন্মোচন করে দিয়েছি। ভুয়া তদন্ত রিপোর্ট জমা দেয়ার জন্য মানবতাবিরোধী অপরাধের আন্তর্জাতিক ট্রাইব্যুনালে ইব্রাহিম খালেদের বিচার চেয়ে সংবাদ সম্মেলন শেষ করেন।

One Comment to “পুজিঁবাজার পতনের রহস্য বের করেছেন সালমান এফ রহমান”

  1. কড়কড়া

    Like

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: